প্রবহমাণ-৪


( এলোমেলো ভাবনা)
এক সময় ছিল যখন নিজের খাতায় বা ছেড়া কোন কাগজে আমাদের যা কিছু লিখতে ইচ্ছে হতো তাই লিখতাম। সে সময় কোন পত্রিকায় লেখা প্রকাশ হওয়া ছিল এক বিশাল রকমের কোন সৌভাগ্যের ব্যপার। সবাই সে সুযোগও পেত না। কিন্তু আজকাল আর সে সময় নেই। যুগের পরিবর্তনে অনেক কিছুই বদলে গেছে। অনেক কিছুই এসেছে যা খুবই ভাল আবার কিছু এসেছে যাকে আপাত মন্দ বললেও দেখা যায় তার অধিকাংশই ভাল তাই মন্দ বলার অবকাশ নেই।
ঠিক এমনই কিছু সুযোগ এসেছে এই ওয়েব জগতে। যারা আজকাল এই আকাশ সভ্যতায় বিচরণ করতে পারেন তারা এই সুযোগটা ব্যবহার করতে পারছেন আবার তেমনি সবাই এখনও এই সুযোগ পাচ্ছেন না। বিশেষ করে এখানে কিছু আর্থিক সঙ্গতির বিষয় জড়িত রয়েছে। তবে দেখা যাক আমাদের দোয়েল নামের লেপটপ কত দূর এগুতে পারে, আমরা তার সাফল্যের পথ চেয়ে রইলাম। এখানে আজকাল সবাই নিজের যা মনে হচ্ছে তা প্রচার বা প্রকাশ করতে পারছেন। অনেকেই দেখছেন পড়ছেন। পড়ে তার মতামত দিচ্ছেন। তবে যারা এই জগতে বিচরণ করেন তারা সবাই এক কথায় ধরে নেয়া যায় শিক্ষিত। কাজেই নিতান্ত ভদ্রতা রক্ষা করতে গিয়ে তাদের কেউ হয়ত কাউকে মন্দ বলছে না সবাই এক কথায় প্রসংশা করেই যাচ্ছেন। এতে যিনি লিখছেন তিনি তার নিজেকে সঠিক যাচাই করতে পারছেন না। সে যাই হোক এ সব নিয়ে লিখতে গেলে অনেক কথা এসে যায় তাই কথা বাড়াচ্ছি না সামান্য কিছু বলেই শেষ করব।

আমি নিজেও বেশ কিছু দিন, তা হ্যাঁ প্রায় দুই বছরের বেশিই হবে মনে হয় লিখছি। কাউকে শেখাবার জন্য আমার এই লেখা নয়। আমি আগেই ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। আমার সাথে সবাই এক মত পোষন নাও করতে পারেন। আমি শুধু আমার ভাবনা গুলি জানাচ্ছি। তবে যিনি খোলা ভাবে আলোচনায় আসতে চান তাকে নিষেধ করব সে ইচ্ছে আমার নেই। আসতে পারেন।

এমন নানা ব্লগে লিখতে গিয়ে আমি যে সব সমস্যায় ভুগেছিঃ
১) বাংলায় টাইপ করতে না পারায় অনেক বানান ভুল দেখাত যা নিয়ে অনেক মন্তব্য পেয়েছি এবং নিজের অক্ষমতার জন্য তা মেনেও নিয়েছি। দেখি অনেকেরই এমন হয় তাই আমি অন্তত এ নিয়ে কিছু বলি না। কারন আমি জানি আমরা অধিকাংশই কেউ টাইপিস্ট নই। কলমে বানান ভুল এবং কম্পিউটারের কী বোর্ডে টাইপিং ভুলের মধ্যে অনেক তফাত।

২) নিজের যা মনে আসে তাই লিখে ফেলি। কখনও ভেবে দেখি না যে কারা এগুলি পড়ছে। ফলে যা হবার তাই হতো। নানা কটু মন্তব্য পেয়েছি এবং তা অবলীলায় হজম করেছি। তবুও ওই যে লেখার একটা সখ তা এড়াতে না পেরে লিখে ফেলে একটা আত্ম তৃপ্তি পাবার চেষ্টা করেছি। হয়তো আমার মত আরো কাউকে পাওয়া যেতে পারে।

৩) কবিতা লিখতে গিয়েও ওই একই অবস্থা। পরে কিছু নিজে ভেবে ভেবে এবং কিছু খুজে খুজে দেখে জেনেছি যা তাই আজ এখানে তুলে দিলাম।
আমরা অনেকেই কবিতা নামে কিছু লেখার ইচ্ছা থেকে চেষ্টা করি কিন্তু সে কি হছে তা ভেবে দেখার সুযোগ পাই না বা দেখি না। নিজেই মনে মনে ভেবে নিই যে একটা কবিতা লিখলাম। আসলে কি তাই?
কবিতার কিছু গুন বা নিয়ম অবশ্যই আছে যা আমার ধারনা বা জানা মতে আমি বিশ্বাস করি। জানি না আপনারা আমার সাথে এক মত হবেন কি না।

ক) কবিতা= কথা+বিন্যাস+তান।
খ) মনের কথা মনের মত করে মনের মানুষকে বলার মনের মত উপায়কে কবিতা বলা যায়।
গ) অবসর সময়ের এলোমেলো ভাবনা গুলো কথার বিন্নুনীতে শৈল্পিক ঢঙ্গে প্রকাশ করাই কবিতা।
ঘ) কবিতা লিখতে গিয়ে কিছু উপাদানের দিকে বিশেষ লক্ষ্য রাখতে হয় যেমনঃ উৎপেক্ষা, উপমা, চিত্রকল্প, অনুপ্রাস, এবং কাব্যময় শব্দ চয়ন।

আবার এর সাথে আরো কিছু দিকে দৃষ্টি রাখতে হবে যেমন;
শব্দ প্রয়োগে নতুনত্বের প্রচলন, শৈল্পিক ভঙ্গিতে বাক্য গঠন, শৈল্পিক আঙ্গিকে উপস্থাপনা, প্রয়োজনিয় শব্দের অবশ্যম্ভাবী বাণি বিন্যাস, ছন্দ, সার্বজনীন, গতানুগতিকতা বর্জিত,অনুকরণ এবং প্রভাব মুক্ত, সাবলীল প্রকাশ, সুস্পষ্ট বক্তব্য, ভাবের গভীরতা, অহেতুক জটিল শব্দের প্রয়োগ না করা, পড়তে গিয়ে পাঠক হোচট খায় কি না সে দিকে লক্ষ্য রাখা। এ ছাড়াও এ ধরনের অনেক কিছু মেনে চললে দেখা যাবে সেটা একটা সুন্দর লেখা হয়েছে।
পরে কোন এক দিন গানের কথা এবং সুর নিয়ে আলাপ করার ইচ্ছা রইল। যদিও আমি সুরকার নই।

আমার কথাটি ফুরাল নটে গাছটি মুরাল।
এবার আপনাদের পালা।

পরবর্তি পোস্টঃ গান ও কবিতা

VN:R_U [1.9.22_1171]
রেটিং করুন:
Rating: 5.0/5 (1 vote cast)
VN:R_U [1.9.22_1171]
Rating: 0 (from 0 votes)
প্রবহমাণ-৪, 5.0 out of 5 based on 1 rating

এই পোস্টের বিষয়বস্তু ও বক্তব্য একান্তই পোস্ট লেখকের নিজের, লেখার যে কোন নৈতিক ও আইনগত দায়-দায়িত্ব লেখকের। অনুরূপভাবে যে কোন মন্তব্যের নৈতিক ও আইনগত দায়-দায়িত্ব সংশ্লিষ্ট মন্তব্যকারীর। শব্দনীড় ব্লগ কোন লেখা ও মন্তব্যের অনুমোদন বা অননুমোদন করে না।
▽ এই পোস্টের ব্যাপারে আপনার কোন আপত্তি আছে?

২৫ টি মন্তব্য (লেখকের ১২টি) | ১১ জন মন্তব্যকারী

  1. ডা. দাউদ : ০৭-১০-২০১১ | ১৯:৫৪ |

    আসসালামুয়ালিকুম স্যার
    অনেক জটিল লিখা
    মজার অভিজ্ঞতা
    আর দারুন সব তথ্য

    ধন্যবাদ

    • নীল নক্ষত্র : ০৮-১০-২০১১ | ১৩:৫১ |

      ধৈর্য্যের সাথে পড়ে মতামতের জন্য ধন্যবাদ আপনাকেও।

  2. কুহক : ০৭-১০-২০১১ | ২০:১০ |

    আমি আলোচনায় অংশ গ্রহন করলাম::::

    তবে যারা এই জগতে বিচরণ করেন তারা সবাই এক কথায় ধরে নেয়া যায় শিক্ষিত।> আমি শিক্ষিত অর্থে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা সার্টিফিকেট নেই।

    ১। এখন অভ্র স্পেল চেকার আরো সহজ করে দিয়েছে। তবু সব শব্দ পাওয়া যায় না, তাই শব্দ কোষের শরনাপন্ন হতে হয়।
    ২। এইটা যতার্থ বলেছেন, এখানে প্রয়োজন বোধ করি সুশিল মননের।
    ৩। ছন্দ-বৃত্ত-যতি-ছেদ-মাত্রা এসব মেনে কবিতা লিখতে গেলে তখন হিমালয়কে ঠেলে সরানোও অনেক সহজ মনে হয়।

    এখন কবিতার আকারে যা হচ্ছে তাকে আবার উত্তর আধুনিক বলে পাশ কাটানোর চেস্টা করছেন। যেমন আমিও করছি।

    আর কবিতার সব প্রথা এই পর্যন্ত 52 প্রকারের কবিতার সঙ্গা পাওয়া যায়, তার মধ্যে আবার শব্দের পরিবর্তন পরিমার্জনের দোহাই দিয়ে বাঙলা হয়ে যায় বাংলা।
    তাই যতটা সম্ভব মার্জনীয় ভাবে মননের ভাব প্রকাশকেই কবিতা বলা চলে।
    [img]http://www.shobdoneer.com/wp-content/uploads/bangla6-400x5931.jpg[/img]
    [img]http://www.shobdoneer.com/wp-content/uploads/riponctgblog_1243154434_1-azadi_victory71-400x633.jpg[/img]

    জয় বাংলার নীচে জয় বাঙলা ও লেখা আছে………..অদ্ভুত ব্যাপার।

    আপনার আলোচনা বিষয়ক মনোভাব ভালো লাগলো।

    • নীল নক্ষত্র : ০৮-১০-২০১১ | ১৩:৫২ |

      দুঃখিত ভাই! নিজে নমন্ত্রণ করে নিজেই থাকতে পারছিনা বলে দুঃখিত। তবে আলাপে অংশ নেয়ার জন্য শিউলি ব্র্যান্ডের শুভেচ্ছা।

  3. তিরু : ০৭-১০-২০১১ | ২৩:০০ |

    ভালো লাগলো লিখাটি ।

    শুভমিতি Smile

    • নীল নক্ষত্র : ০৮-১০-২০১১ | ১৩:৫৪ |

      আপনার জন্য হাস্না হেনা ব্র্যান্ডের ধন্যবাদ।

  4. মুরুব্বী : ০৮-১০-২০১১ | ০:৪১ |

    আমরা লিখবার সময় অনেকেই বেশ কিছু বিষয় ইচ্ছেয় বা অনিচ্ছেয় এড়িয়ে যাই। এই যাওয়াটা আমি দোষের মনে করিনা। স্মরণে রাখা প্রয়োজন এখানে বা এ মাধ্যমে আমরা অনেকেই প্রসিদ্ধ নই। ধরে নেয়া যায় প্রায় নবীণ। সতত ইচ্ছে থাকলেও প্রেসপট্রির কথা ভাবতে পারিনা। কোন এক সময় ছিলো পান্ডুলিপি বা লিখার কপি পাঠিয়ে অপেক্ষার প্রহর গোনেন বা গুনতেন লিখিয়ে ভদ্রজন অনেকে। প্রকাশ পেলে আলোর হাসি ফুটতো। নাহলে যেন বিষাদে ছেয়ে যেতো মন। আজকাল নিতান্তই বাধ্য না হলে সৌখিনে তাঁদের অনেকে ব্লগ বেছে নেন বা নেই। আমার মতে একে বলে ইলেক্ট্রনিকে প্রথম ধারাপাত। যারা অনুসরণ করেন; নিষ্ঠার সাথে লেগে থাকতে পারেন; পাঠকের অনুভূতি তাৎক্ষণিক আমলে এনে তা শুধরাবার সুযোগটি হাতছাড়া করতে না পারেন, নিন্দা সইতে পারেন হাসি মুখে, সাফল্য এবং সার্থকতা তাঁদের দোরপ্রান্তে। কেননা ব্লগ বা আন্তর্জাল শুধু দেবারই জায়গা নয় পাবারও। এবং সর্বোপরি শেখারও বটে।

    • নীল নক্ষত্র : ০৮-১০-২০১১ | ১৩:৫৬ |

      আমার মনে হচ্ছে আপনার এবং আমার কথা একই। তাই আপনার জন্য লাল গোলাপ ব্র্যান্ডের ধন্যবাদ। তবে দুঃখিত যে আলাপ করতে পারছি না সময়ের অভাবে।

  5. সাইক্লোন : ০৮-১০-২০১১ | ১২:৩১ |

    ক) কবিতা= কথা+বিন্যাস+তান।
    খ) মনের কথা মনের মত করে মনের মানুষকে বলার মনের মত উপায়কে কবিতা বলা যায়।
    গ) অবসর সময়ের এলোমেলো ভাবনা গুলো কথার বিন্নুনীতে শৈল্পিক ঢঙ্গে প্রকাশ করাই কবিতা।
    ঘ) কবিতা লিখতে গিয়ে কিছু উপাদানের দিকে বিশেষ লক্ষ্য রাখতে হয় যেমনঃ উৎপেক্ষা, উপমা, চিত্রকল্প, অনুপ্রাস, এবং কাব্যময় শব্দ চয়ন।

    Yes Yes জী স্যার

  6. বিষণ্ণময়ী : ০৮-১০-২০১১ | ২২:৫৫ |

    বাংলা লেখায় আসলেই আমরা প্রচুর ভুল করি। তেমনি ভুল করি কবিতায় উপমার ব্যবহার।
    আসলে ব্লগে যে লেখা হয় তার ৯৯% কোন প্রফেশনাল লেখক নয়, মনের আনন্দে বা সখের বশে কবিতা লেখা হয় বলেই উপমা বা সুন্দর শব্দ ব্যবহারে এতো উদাসিন থাকে।

    যারা ভাল মানের লেখক তারা কিন্তু ঠিকই সুন্দর ভাবে লেখা লিখে যাচ্ছেন।
    ভাল থাকুন।

    • নীল নক্ষত্র : ০৯-১০-২০১১ | ২১:১১ |

      ঠিক তাই। তবে লিখতে লিখতেই না এক দিন মস্ত লেখক হতে পারে। না লিখে কি আর তা হয়? যেমন, এক দিনে কি আর শরত বাবু হতে পেরেছিলেন?
      ধন্যবাদ দিদি।

  7. ফকির আবদুল মালেক : ০৯-১০-২০১১ | ১৫:২৪ |

    ব্লগে আমরা যারা লিখি তারা প্রায় সকলে (কয়েকজন বাদে) শখের লেখক। অনেক সময়ই মন যা চায় লিখে ফেলি, পোষ্ট দিয়ে দেই। বানান????? আর বলে কি লাভ? বাংলা অনেক কঠিন মনে হয় মাঝে মাঝে।

    ধন্যবাদ চমৎকার আলোচনার জন্য।

    • নীল নক্ষত্র : ০৯-১০-২০১১ | ২১:১৬ |

      সব্বাই সখের বশেই লিখে থাকে। অন্তত শুরুটা এভাবেই হয়। প্রথমত নিজের বা একান্ত ঘনিউষ্ঠ কোন বন্ধুর কোন ঘটনা দিয়ে শূরু, আর তারপর …………………… শুধু সামনে এগিয়ে যাওয়া। এই ভাবে এর মধ্য থেকেই একদিন শরত বা সমরেশ কিংবা নিদেন পক্ষে নীল নক্ষত্র বেরিয়ে আসবে তাই না দাদা?
      বানানের কথা আর বলবেন না। তবে আমাদের কিন্তু চেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। বিশ্বাস করবেন কি না! প্রায় আজীবণ বিলাতের মত ইংরেজি ভাষার দেশে থেকেও কোন দিন বাঙ্গালীদের সাথে কোন ইংরেজী বলিনি। আসলে সবই ইচ্ছার জোড়।
      আমি বাঙালি এটাই আমার অহংকার।

  8. আফরোজা হক : ০৯-১০-২০১১ | ১৬:০৮ |

    বাহ !
    এভাবে তো কোনদিন ভেবে দেখিনি !

    কবিতা= কথা+বিন্যাস+তান।

    • নীল নক্ষত্র : ০৯-১০-২০১১ | ২১:২১ |

      বেশ, এবার না হয় এমন করেই ভেবে দেখ লখমী দিদি। যদিও তোমার যে লেখা তাতে আর কিছু শেখার দরকারই নেই। আমার মনে হয় এটা তুমি খোদা প্তদত্ত ভাবে পেয়েছ। বড়ই আনন্দ এবং গর্বের কথা।

    • আফরোজা হক : ১৬-০৬-২০১২ | ২০:৩৩ |

      শুকরিয়া দাদা।
      শুভকামনা।

  9. আফরোজা হক : ০৯-১০-২০১১ | ১৬:১৫ |

    গানের আলাপের অপেক্ষায় রইলাম।
    ভালো থাকবেন নক্ষত্রদা।
    Smile

    • নীল নক্ষত্র : ০৯-১০-২০১১ | ২১:২৩ |

      গানের ব্যাপারে অনেক দিন থেকেই ভাবছি কিন্তু সময় বের করতে পারছি না। তবে আমি লিখব। তোমাদের পাশে পেয়ে আমি গর্বিত। তুমিও ভাল থেক।

  10. চন্দন : ২৫-১০-২০১১ | ৭:৪৯ |

    নীল নক্ষত্র ভাই, অনেক কিছুই পেলাম এখানে, কিন্তু তা গ্রহণ করবার মত বিদ্যা, বুদ্ধি, জ্ঞান বা ধৈর্য কোনটাই নেই আমার। অবসর কাটাতে আসি, নিজের ইচ্ছায় লিখি কিছু। যদি কারো ভালো লাগে নিজেকে ধন্য মনে করি, কেউ গাল-মন্দ করলে তা মাথা পেতে নিই।
    তবু সুপরামর্শের জন্য আপনার কাছে কৃতজ্ঞ রইলাম। মাঝে মাঝে এমন করে অন্যদের পরামর্শ দিলে অনেকেই নিশ্চয়ই উপকৃত হবেন।
    আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

  11. ডাক্তারের রোজনামচা : ০৭-০১-২০১২ | ২:৫০ |

    আপনি সাগরের মাঝে ছিলেন বলেই এতো সুন্দর করে কবিতা নিয়ে লিখতে পারলেন!

    • নীল নক্ষত্র : ১৩-০১-২০১২ | ২২:৩৮ |

      আপনার ধারনা সঠিক না বেঠিক জানি না। তবে এত সুন্দর মন্তব্য দেখে ভাল লাগা জানাচ্ছি।

      শুভ কামনা অনন্ত।

  12. মুহাম্মদ সাঈদ আরমান : ১৪-০৬-২০১২ | ২১:১৬ |

    এই জাতীয় লেখাকে আমি পাথেয় মনে করি । যখন পোস্ট দিয়েছিলেন আমি কেন ব্লগে ছিলাম না জানি না।
    লেখার সবটুকুই আমার উপকারে আসবে। ধন্যবাদ স্যার
    শুভকামনা সতত

    • নীল নক্ষত্র : ১৪-০৬-২০১২ | ২১:৩৮ |

      ধন্যবাদ সাইদ ভাই।
      আমার যে কোন লেখা কারো কোন কাজে এলে আমার প্রচেষ্টা সফল হবে জেনে তৃপ্তি পাই।